Smart News - шаблон joomla Создание сайтов
  • Font size:
  • Decrease
  • Reset
  • Increase

আম তুমি কার? ৩৫ বছরের লড়াই

সীমান্ত চুক্তি থেকে কাশ্মীর, সিয়াচেন থেকে পরমাণু অস্ত্র সম্ভার-বহু ক্ষেত্রেই ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে রয়েছে মতোবিরোধ। সীমান্ত নিয়ে লড়াইও বাধে দফায় দফায়। এই দু'দেশের মধ্যে আরও একটি কারণ নিয়ে যে বিবাদ রয়েছে তা কিন্তু অনেকেই জানেন না। আর সেই বিবাদটা নিছকই একদিন বা দু'দিনের নয়, দীর্ঘ ৩১ বছরের। অত্যন্ত তুচ্ছ এই বিষয়টি নিয়ে রাজনৈতিক থেকে কূটনৈতিক স্তর পর্যন্ত একটি ঠান্ডা লড়াই রয়েছে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে।

ঘটনায় জানা যায়, ১৯৮১ সালে পাকিস্তানের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট জেনারেল জিয়াউল হক ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীকে ও রাষ্ট্রপতি নীলম সঞ্জীব রেড্ডিকে এক ঝুড়ি আম পাঠান। সঙ্গে ছিল একটি ম্যাসেজ। সেই আম নাকি তাঁদের দেশের সেরা আম। আম খেয়েও আপ্লুত হয়ে পড়েন ইন্দিরা ও নীলম সঞ্জীব রেড্ডি। 'রাতাউল' নামে সেই আমের প্রশংসা করে জিয়াকে একটি খোলা চিঠিও পাঠান ইন্দিরা গান্ধী। তাতে সার্টিফিকেট দিয়ে বলেন, ''ওই আম শুধু পাকিস্তানেই ফলবে।''

ব্যাস সেখানেই ঘটে যায় বিপদ। খবর চাউর হতেই উত্তরপ্রদেশের রাতাউল জেলার আমচাষীরা ছুটে আসেন তত্‍কালীন প্রধানমন্ত্রীর কাছে। বলেন, এই আম কোনওভাবেই পাকিস্তানের হতে পারে না। কারণ, যে মানুষটি সেই আমের চাষ করেন পাকিস্তানে তিনি নাকি এই রাতাউল জেলারই বাসিন্দা ছিলেন। তাঁরা প্রধানমন্ত্রীকে জানান ওই ব্যক্তি ভারত-পাকিস্তান ভাগ হওয়ার সময় রাতাউল এলাকা থেকে কয়েকটি আমের চারা নিয়ে যান সেখানে। আর তারপর থেকেই পাকিস্তানে আমের উত্‍পাদন শুরু।

বিশ্ব আম উত্‍সবে যখনই এই দুই দেশ মুখোমুখি হয়, তখনই তাদের মধ্যে রাতাউল আম নিয়ে শুরু হয় ঠান্ডা লড়াই।

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found
বাজারে গত মাসের মাঝামাঝি সময় থেকেই আম আম রব। ক্রেতা যে আমেই হাত দিক না কেন দোকানি বলবে হিমসাগর নয়তো রাজশাহীর আম। ক্রেতা সতর্ক না বলে রঙে রূপে একই হওয়ায় দিব্যি গুটি আম চালিয়ে দেওয়া হচ্ছে হিমসাগরের নামে। অনেকসময় খুচরা বিক্রেতা নিজেই জানে না তিনি কোন আম বিক্রি করছেন। ...
ফলের রাজা আম। আর আমের রাজধানী চাঁপাইনবাবগঞ্জ। দেশের সর্ববৃহত্তর অর্থনৈতিক ও আন্তর্জাতিক বাণিজ্যলয় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা। এ জেলার প্রধান অর্থকরী ফসল আম। বর্তমানে জেলা সবখানে চলছে বাগান পরিচর্যা ও বেচা-কেনা। বর্তমানে জেলার ২৪ হাজার ৪৭০ হেক্টর আম বাগানে ৯০ ভাগ মুকুল এসেছে। ...
আমাদের দেশে উৎপাদিত মোট আমের ২০ থেকে ৩০ শতাংশ সংগ্রহোত্তর পর্যায়ে নষ্ট হয়। প্রধানত বোঁটা পচা ও অ্যানথ্রাকনোজ রোগের কারণে আম নষ্ট হয়। আম সংগ্রহকালীন ভাঙা বা কাটা বোঁটা থেকে কষ বেরিয়ে ফলত্বকে দৃষ্টিকটু দাগ পড়ে । ফলত্বকে নানা রকম রোগজীবাণুও লেগে থাকতে পারে এবং লেগে থাকা কষ ...
বাংলাদেশে উৎপাদিত ফল ও সবজির রপ্তানির সম্ভাবনা অনেক। তবে সম্ভাবনার তুলতায় সফলতা যে খুব যে বেশি তা বলার অপেক্ষা রাখে না। রপ্তানি সংশ্লিষ্ঠ ব্যাক্তিবর্গ অনিয়মতান্ত্রিকভাবে বিভিন্নভাবে তাদের প্রচেষ্ঠা অব্যহত রেখেছেন। কিন্তু এদের সুনির্দিষ্ট কোন কর্ম পরিকল্পনা নেই বললেই চলে। ...
ফলের রাজা আম এ কথাটি যথাযথই বাস্তব। ফলের মধ্যে এক আমেরই আছে বাহারি জাত ও বিভিন্ন স্বাদ। মুখরোচক ফলের মধ্যে অামের তুলনা নেই। মৌসুমি ফল হলেও, এর স্থায়িত্ব বছরের প্রায় তিন থেকে চারমাস। এছাড়া ফ্রিজিং করে রাখাও যায়। স্বাদ নষ্ট হয় না। আমের ফলন ভালো হয় রাজশাহী অঞ্চলে। ...
আম গাছ কে দেশের জাতীয় গাছ হিসেবে ঘোষনা দাওয়া হয়েছে। আর এরই প্রতিবাদে কিছুদিন আগে এক সম্মেলন হয়ে গেলো যেখানে বলা হয়েছে :-"৮৫% মমিন মুসলমানের দেশ বাংলাদেশ। ঈমান আকিদায় দুইন্নার কুন দেশেরথে পিছায় আছি?? আপনেরাই বলেন। অথচ জালিম সরকার ভারতের লগে ষড়যন্ত কইরা আমাগো ঈমানের লুঙ্গি ...

MangoNews24.Com

আমাদের সাথেই থাকুন

facebook ফেসবৃক

টৃইটার

Rssআর এস এস

E-mail ইমেইল করুন

phone+৮৮০১৭৮১৩৪৩২৭২