Smart News - шаблон joomla Создание сайтов
  • Font size:
  • Decrease
  • Reset
  • Increase

রাজশাহী চাঁপাইনবাবগঞ্জে জমে উঠেছে ফজলি আমের বাজার

আমের রাজধানী রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জে আমের রাজা ফজলি'র মওসুমে ক্রেতা-বিক্রেতাদের ভিড়। জমে উঠেছে ফজলি আমের বাজার। আম মওসুমে শুধু জেলায় প্রায় দেড় হাজার কোটি টাকার লেনদেন এবং আমচাষিসহ এ ব্যবসার সঙ্গে প্রায় লক্ষাধিক লোকের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ সূত্রে জানা যায়, এই দুই জেলায় অর্থকরি ফসল আমের গুরুত্ব এবং আম-চাষিদের বাগান পরিচর্যার কারণে আমের উৎপাদন বৃদ্ধি পাওয়ায় অনেকে বরেন্দ্র ও চরাঞ্চলের ধানী জমিতে নতুন নতুন আমবাগান তৈরিতে ব্যস্ত রয়েছেন। এখানে প্রায় ২৫ হাজার হেক্টর জমিতে ১৯ লাখ আমগাছ রয়েছে। এবার আমের ‘অন-ইয়ারের' কারণেই প্রতিটি বাগানের গাছে প্রচুর মুকুল আসলেও ঘন কুয়াশা, বৈরি আবহাওয়ার কারণে বেশির ভাগ গাছের মুকুল নষ্ট হয়ে যায়। তারপরও জেলায় এবার ২ লাখ ৫০ হাজার মে. টন আম উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করে কৃষি বিভাগ। মওসুমের শুরুতে গুটিজাতের আমের বাজার দর তেমন পায়নি আম ব্যবসায়ীরা। কেননা কয়েক দফা হরতাল, টানাবর্ষণ এবং দেশের অন্যান্য সনের আমের ব্যাপক আমদানি থাকায় জেলার আমের বাজার দর নিম্নমুখি ছিল।

শুরুতে অন্যান্য স্থানের আগাম জাতের আমের আমদানি শেষ হওয়ায় এখন নাবি জাতের আম ফজলি'র বাজার দর বেশ ভাল পাওয়ায় আম ব্যবসায়ীরা ভীষণ খুশি। বর্তমানে রাজশাহী জেলার পবা, চারঘাট ও বাঘা এবং চাঁপাই নবাবগঞ্জের সদরঘাট, মহাররাজপুর, রানীহাটি, কানসাট, মোবারকপুর, চৌডালা, রহনপুর, মল্লিকপুর ও ভোলাহাট আম ফাউন্ডেশনের আমের বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বড় থেকে মাঝারি ফজলি আম ২৮০০-৩২০০ টাকা মণ দরে বিক্রি হচ্ছে।

কিছু কিছু স্থানে আগাম আশ্বিনা জাতের আম ৬০০-৮০০ টাকা প্রতি মণ বিক্রি হচ্ছে।

কানসাট, ভোলাহাট, রহনপুরসহ চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে প্রতিদিন প্রায় আড়াশ ট্রাক আম ঢাকা, চট্টগ্রাম, চৌমুহনী, নারায়ণগঞ্জ, কুমিল্লা, ফেনীসহ বিভিন্ন স্থানে যাচ্ছে। প্রতিটি ট্রাকে প্রায় সাড়ে সাত লাখ টাকার আম যাচ্ছে। আমের পুরো মওসুমে আমবাগান যোগানদার, আম পাড়া, টুকরি তৈরি, ট্রাক বোঝাই থেকে বিভিন্ন কর্মকান্ডে প্রায় লক্ষাধিক লোকের কর্মসংস্থানের সুযোগ এবং প্রায় দেড় হাজার কোটি টাকার লেনদেনে জেলার অর্থনৈতিক অবস্থা চাঙ্গা রয়েছে। তবে সাম্প্রতিক হাইকোর্টের রিটের রায়, র‌্যাব ও প্রশাসনের কড়া নজরদারিতে এ বছর কার্বাইড মিশ্রিত আম বাজারে কম দেখা যাচ্ছে। এদিকে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে জেলার প্রায় বাগানের গাছে আম ফেটে পড়ে যাওয়ায় অনেক ব্যবসায়ী ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন।

দেশের সবচেযে বড় আম বাজার কানসাটের আম ব্যবসায়ী নূরুল ইসলাম জানান, আগামী মধ্য ভাদ্র পর্যন্ত চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিভিন্নস্থানের বাজারে আম পাওয়া যাবে। জেলার চিরাচরিত বৈশিষ্ট্য হিসেবে চাঁপাইনবাবগঞ্জের আম দেরিতে পাকে এবং দীর্ঘসময় গাছে আম সংরক্ষণের ব্যবস্থা করে আমচাষিরা। ফলে আমের চড়া মূল্যও পায় ব্যবসায়ীরা। এবার সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে তেমন ভারতীয় আম আমদানি হয়নি। তবে শিবগঞ্জ, ভোলাহাট ও রহনপুর সীমান্ত-পথে চোরাইভাবে ভারতীয় আমের আমদানি হচ্ছে।

ভোলাহাট আম ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হোসেন চুটু জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জে সিংহভাগ আম উৎপাদন হলেও এখানে আমভিত্তিক কোন প্রসেসিং কারখানা গড়ে না উঠায় প্রতিবছর বিপুল পরিমাণ আম পচে নষ্ট হচ্ছে। জেলায় আম প্রসেসিং কারখানা গড়ে উঠলে কর্মসংস্থানের পাশাপাশি জেলার অর্থনৈতিক অবস্থান সুদৃঢ় হবে।

Leave your comments

0
terms and condition.
  • No comments found
এক আমের দাম ৩৩ হাজার টাকা! কে কিনেছে এই আম এবং ঘটনাটা কী?- ভাবা যায়! একটি আমের দাম ৩৩ হাজার টাকা। তাও আবার আমের রাজধানী-খ্যাত চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে। ঘটনাটা কী! শিবগঞ্জ উপজেলার দুলর্ভপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রাজিবুল ইসলাম রাজু জানান, শনিবার সকালে দুলর্ভপুর ইউনিয়নের ...
মধূ মাসে বাজারে উঠেছে পাকা আম। জেলা শহর থেকে ৬০ কি.মি দুরের প্রত্যন্ত ভোলাহাট উপজেলার স্থানীয় বাজারে ফরমালিন মুক্ত গাছপাকা আম এখন চড়া দামে বিক্রয় হচ্ছে। মালদহ সীমান্তবর্তী বিশাল আমবাগান ঘেরা এই উপজেলায় বেশ কিছু জায়গা ঘুরে বাজারগুলোতে শুধু গাছপাকা আম পেড়ে বিক্রয় করতে দেখা ...
ঝিনাইদহে দিন দিন বাড়ছে আম চাষের আবাদ। স্বাস্থ্য ঝুঁকিবিহীন জৈব আর ব্যাগিং পদ্ধতিতে আম চাষ করছে এই এলাকার আমচাষিরা। এ বছর ফলন ভালো হওয়ার আশায় খুশি তারা। জেলা থেকে বিদেশে রপ্তানী আর আম সংরক্ষণের দাবি চাষিদের। জানা যায়, ২০১১ সালে ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলায় আমের আবাদি জমির ...
সারা দেশে যখন ‘ফরমালিন’ বিষযুক্ত আমসহ সব ধরনের ফল নিয়ে মানুষের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে, তখন বরগুনা জেলার অনেক সচেতন মানুষ বিষমুক্ত ফল খাওয়ার আশায় ভিড় জমাচ্ছেন মজিদ বিশ্বাসের আমের বাগানে। জেলার আমতলী উপজেলার আঠারগাছিয়া ইউনিয়নে শাখারিয়া-গোলবুনিয়া গ্রামে মজিদ বিশ্বাসের ২ একরের ...
মৌসুমি ফল দিয়ে কর্তা ব্যক্তিদের খুশি করে স্বার্থ উদ্ধারের পদ্ধতি অনেক দিনের। বর্তমানে এই খুশি বিষয়টি আদায় করতে নগদ অর্থ খরচ করতে হলেও ফল থেরাপি ধরে রেখেছে অনেকেই। এর একটি হল মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর। মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের জন্য নিয়মিত ...
আম গাছ কে দেশের জাতীয় গাছ হিসেবে ঘোষনা দাওয়া হয়েছে। আর এরই প্রতিবাদে কিছুদিন আগে এক সম্মেলন হয়ে গেলো যেখানে বলা হয়েছে :-"৮৫% মমিন মুসলমানের দেশ বাংলাদেশ। ঈমান আকিদায় দুইন্নার কুন দেশেরথে পিছায় আছি?? আপনেরাই বলেন। অথচ জালিম সরকার ভারতের লগে ষড়যন্ত কইরা আমাগো ঈমানের লুঙ্গি ...

MangoNews24.Com

আমাদের সাথেই থাকুন

facebook ফেসবৃক

টৃইটার

Rssআর এস এস

E-mail ইমেইল করুন

phone+৮৮০১৭৮১৩৪৩২৭২